• ঢাকা
  • সোমবার, ২৪ Jun ২০২৪, ১২:৩৫ অপরাহ্ন

ঠাকুরগাঁওয়ে ভুট্টার ভালো ফলনেও অসন্তুষ্ট চাষীরা


প্রকাশের সময় : মে ১৬, ২০২৩, ৭:৩৫ PM / ১১০
ঠাকুরগাঁওয়ে ভুট্টার ভালো ফলনেও অসন্তুষ্ট চাষীরা

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি : উত্তরের কৃষিপ্রধান জেলা ঠাকুরগাঁওয়ে সব ধরনের ফসল উৎপাদনের হার অন্য জেলা গুলির তুলনায় বেশ ভালো। বিগত সময়ে এখানে গমের আবাদ বেশি হলেও ভালো উৎপাদন ও দাম ভালো পাওয়ায় বর্তমানে এখানে বেড়ে গেছে ভুট্টার আবাদ।

গত বছর ভুট্টার ভালো দাম পেয়ে এবারও ভালো দাম পাবার আশায় ঠাকুরগাঁওয়ের কৃষকরা ব্যাপকভাবে চাষ করেছেন ভুট্টার। এবার ফলন ভালো হলেও দামে অসন্তুষ্ট জেলার ভুট্টা চাষীরা। তবে ভুট্টার দাম বৃদ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানান কৃষি বিভাগ ও ব্যবসায়ীরা।

এবার জেলার প্রায় প্রতিটি কৃষক কম বেশি চাষ করেছেন ভুট্টা। তাই আগাম জাতের ভুট্টা কর্তন শুরু করেছেন কৃষকরা। প্রখর রোদে ও তীব্র দাবদায়ে মাঠ থেকে ফসল সংগ্রহ, মাড়াই ও শুকানোর কাজে চরম ব্যস্ত ভুট্টা চাষীরা।

গতবার আলুতে তেমন লাভবান না হওয়ায় এবার কৃষকরা আলু ও গমের আবাদ কমিয়ে ব্যাপকভাবে চাষ করেছেন ভুট্টা। তবে ভুট্টার আশানুনুপ ফলন হলেও পরিশ্রমের দিক থেকে সঠিক দাম নিয়ে অনিশ্চয়তায় রয়েছেন তারা।

ঠাকুরগাঁও কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের তথ্য মতে, এবার জেলায় ভুট্টা আবাদের লক্ষ্যমাত্রা ৩৩ হাজার হেক্টর থাকলেও তা ছাড়িয়ে আবাদ হয়েছে ৩৮ হাজার ৬০ হেক্টর জমিতে। এর মধ্যে মাঠ থেকে প্রায় ৫০ শতাংশ ভুট্টা কর্তন করা হয়েছে ইতোমধ্যেই। হেক্টর প্রতি ১১ থেকে ১৪ টন পর্যন্ত ফলন হচ্ছে।

দুই একর জমিতে আগাম জাতের ভুট্টা চাষ করছেন সদর উপজেলার বড় বালিয়া এলাকার কৃষক মোমিনুল হক। তিনি বলেন, এবার ভুট্টার ফলন ভালো হয়েছে কিন্তু গতবারের মতো দাম পাচ্ছি না। গত বছরের তুলনায় এবার তো সব কিছুর দাম বেশিই ছিলো। আমাদের উৎপাদন খরচও বেশি হয়েছে। বর্তমানে একজন দিন মজুরকে দিনে ছয়শ টাকা দিয়েও পাওয়া যায় না। এছাড়া তো জ্বালানি তেল, হাল, সার বিষ ও কীটনাশকের দাম আগের তুলনায় অনেক বেড়ে গেছে কিন্তু তার পরেও এবার ভুট্টার দাম কম। বাজারে বর্তমানে প্রতি বস্তা ভুট্টা বিক্রি হচ্ছে ১১শ থেকে ১৬শ টাকায়। ২২’শ টাকা না হলেও অন্তত ২ হাজার টাকা বস্তা হলেও আমাদের কিছুটা লাভ হতো।

আরাজি সালান্দর গ্রামের ভুট্টা চষী খতিব উদ্দিন জানান, গতবছর বস্তা প্রতি কাঁচা ভুট্টার দাম পেয়েছিলাম ২১-২২’শ টাকা। তাই গতবারের মতো এবারও ভালো দাম পাওয়ার আশায় বেশি করে ভুট্টা করেছিলাম কিন্তু এবার আমি দাম পেয়েছি মাত্র ১৩-১৪’শ টাকা।

পীরগঞ্জ উপজেলার চিলাছাপা গ্রামের ভুট্টা চাষী রবিউল ইসলাম বলেন, ‘গতবারের মতো এবারও দাম পাওয়ার আশায় আমরা চাষীরা ব্যাপক হারে ভুট্টার আবাদ করেছি। এতে ফলনও হয়েছে ভালো কিন্তুআমরা সঠিক দাম পাচ্ছি না। আমি এবার কাঁচা ভুট্টা প্রতি বস্তা বিক্রি করেছি ১৪শ ৫০ টাকা। এই দামে কৃষকের লাভ হচ্ছে খুবই স্বল্প। আবার পরিশ্রমের তুলনায় লাভ তো হয় না লোকসানেই বলা চলে। তবে এখন অবশ্য কিছুটা দাম বৃদ্ধি পেয়েছে।

তবে ঠাকুরগাঁওয়ের ভুট্টা ব্যবসায়ী আনিসুর রহমান, পেজগার আলী ও পজিরুল ইসলাম বলেন, বর্তমান কাঁচা ভুট্ট ৮০ কেজির বস্তা ১৫’শ থেকে ১৭’শ ও শুকনা ভুট্টা প্রতি কেজি ২৩ থেকে ২৫ টাকা দরে বিক্রয় করছেন । তবে এর থেকেও দাম আরও বৃদ্ধি পাওয়ার সম্ভাবনা আছে। শুকনা ভুট্টার দাম ৩০ টাকা কেজি পর্যন্ত বৃদ্ধি পেতে পারে বলে জানান তারা।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ পরিচালক সিরাজুল ইসলাম বলেন, ‘ভুট্টা আবাদ ও ভালো ফলনে জেলায় এবার ভুট্টা উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যেতে পারে। কৃষকরা বর্তমানে যা দাম পাচ্ছেন তা তুলনামূলকভাবে কম । তবে কৃষকরা যদি ভুট্টা ধরে রাখতে পারে তাহলে ৯’শ থেকে ১হাজার টাকা মন পেতে পারেন। আশা করছি অল্প দিনের মধ্যেই হয়তো ভুট্টার দাম আরও কিছুটা বৃদ্ধি পাবে।