• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১৮ Jun ২০২৪, ০৯:৪৮ অপরাহ্ন

রাকিনের কর্মকর্তাদের দুর্নীতির জালে আটকে গেছে বিজয় রাকিন সিটির নির্মাণ কাজ


প্রকাশের সময় : জুন ৯, ২০২৪, ১১:০৯ PM / ৩১
রাকিনের কর্মকর্তাদের দুর্নীতির জালে আটকে গেছে বিজয় রাকিন সিটির নির্মাণ কাজ

বিশেষ প্রতিনিধি : রাকিন ডেভেলপমেন্ট কোম্পানি লিমিটেডের কর্মকর্তাদের সীমাহীন দুর্নীতির কারণে বিজয় রাকিন সিটিতে মহান মুক্তিযুদ্ধের স্মারক ভাস্কর্য নির্মাণ শুরু ও অসমাপ্ত নির্মাণ কাজ আটকে গেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

এ ব্যাপারে কোম্পানীর ভুক্তভোগী প্রকৌশলী রাহিদ আলম ও অনেক ভুক্তভোগী বাসিন্দা জানান, কাজ সম্পন্নে ব্যর্থ হওয়ায় নিজেদের দুর্নীতি আড়াল করতে রাকিন ডেভেলপমেন্ট কোম্পানি লিমিটেডের সকল পর্যায়ের কর্মকর্তাদের কে চাকুরী থেকে স্বেচ্ছায় পদত্যাগ করার কথা বললে অধিকাংশ কর্মকর্তা পদত্যাগ পত্র প্রদানে অস্বীকৃতি জানালে বোর্ড সদস্য আহমেদ মুশফিকের নির্দেশে কোম্পানির সিওও রশীদুল আলম সকল কর্মকর্তাকে চাকুরিচ্যুত করার হুমকি প্রদান করেন এবং সিওও রশীদুল আলম, জেনারেল ম্যনেজার (পাবলিক কমিউনিকেশন) আরিফুর রহমান তপন, ফাইন্যান্স কন্ট্রোলার সাইফুল ইসলাম, কোম্পানি সচিব আবু বক্কর সিদ্দিক অন্যদেরকে পদত্যাগে প্ররোচিত করতে নাটকীয়ভাবে কোম্পানিতে পদত্যাগ পত্র প্রদান করে অন্যান্য কর্মকর্তা জেনারেল ম্যানেজার (এইচআর) নূর ই কানিজ সুলতানা উর্মিসহ প্রকৌশলী বিভাগ ও অন্যান্য বিভাগের সর্বমোট প্রায় ১৩০ জন কর্মকর্তাকে পদত্যাগ করতে বাধ্য করান। তারপর নাটকীয়ভাবে পদত্যাগীদের বোর্ড কর্তৃক চাকুরীতে বহাল রেখে অন্যান্যদের চাকুরীচ্যুত করার পাশাপাশি অনেক কর্মকর্তাকে প্রাণনাশের হুমকিসহ বিভিন্ন প্রকারের ভয়ভীতি প্রদান করছে কোম্পানিতে ঘাপটি মেরে থাকা নাটকীয় পদত্যাগী দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তা রশিদ ও তার অনুগত আবুল কালাম, সিদ্দিক, সাইফুল। ফলে অনেক কর্মকর্তা জীবনের ভয়ে তাদের কর্মস্থল রাকিন অফিসে ঢুকতে পারছে না। এ ব্যপারে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ চেয়ে একজন কর্মকর্তা কাফরুল থানায় জিডি এন্ট্রি করেছেন, যার জিডি নং-২৪৬৯, তাং-৩০/০৫/২০২৪।

এ প্রেক্ষিতে কাফরুল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার নিকট জানতে চাইলে তিনি জানান, জিডির তদন্ত চলছে এবং আসামিদের ব্যাপারে তদন্ত অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এ পরিস্থিতিতে বিজয় রাকিন সিটির নির্মাণ কাজে ব্যর্থ রাকিনের দুর্নীতিবাজ ও পদত্যাগী সকল কর্মকর্তার চাকুরীচ্যুত করার আহ্বান জানিয়ে বিজয় রাকিন সিটির অনির্মিত ২য় গেটের সম্মুখে একটি ব্যানার মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযোদ্ধা পরিবার কল্যাণ সমিতির পক্ষ থেকে লাগানো অবস্থায় দেখা যায়।