• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১৮ Jun ২০২৪, ১০:১৪ অপরাহ্ন

বাগাতিপাড়ায় হঠাৎ ব্যাংক লেনদেন বন্ধ, ভোগান্তিতে গ্রাহক


প্রকাশের সময় : মে ২১, ২০২৪, ১২:০৫ AM / ৫৩
বাগাতিপাড়ায় হঠাৎ ব্যাংক লেনদেন বন্ধ, ভোগান্তিতে গ্রাহক

বাগাতিপাড়া (নাটোর) প্রতিনিধি : নাটোরের বাগাতিপাড়ায় কোনো পূর্ব ঘোষনা ছাড়াই সোমবার দুপুরে হঠাৎ বেশিরভাগ সরকারি ব্যাংকের লেনদেন বন্ধ হয়ে যায়। ফলে, চরম ভোগান্তিতে পরে এসব ব্যাংকে লেনদেন করতে আসা গ্রাহক। উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দায়িত্বপ্রাপ্ত এসব ব্যাংকের একাধিক কর্মকর্তা নির্বাচনী সরঞ্জাম নিতে যাওয়ায় দুপুরের পর লেনদেন বন্ধ হয়ে যায়। পূর্ব ঘোষনা না দিয়ে ব্যাংকের এমন সিদ্ধান্ধে বিস্ময় প্রকাশ করেছেন লেনদেন করতে আসা একাধিক গ্রাহক।

সোনালী,অগ্রণী,জনতাসহ উপজেলার একাধিক সরকারি ব্যাংক কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলে জানা গেছে, প্রতিটি সরকারি ব্যাংকের একাধিক কর্মকর্তাকে আগামীকাল (২১ মে) অনুষ্ঠিতব্য উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। সহকারি রিটার্নিং কর্মকর্তার নির্দেশে আজ (২০ মে) দুপুরে তারা নির্বাচনী সরঞ্জাম বুঝে নিতে উপজেলায় যায়। ব্যাংকের একাধিক কর্মকর্তা চলে যাওয়ায় দুপুরের পর কিছু সেবা চালু তাকলেও বন্ধ হয়ে যায় লেনদেন। নির্বাচন উপলক্ষ্যে আগামীকাল ব্যাংক বন্ধে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনা রয়েছে। তবে, ভোটের আগেরদিন দুপুর পর্যন্ত লেনদেন সীমিত রাখা বা দুপুর পর্যন্ত লেনদেন চালু থাকার ব্যাপারে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কোনো নির্দেশনা নেই। এছাড়া, এ ব্যাপারে গ্রাহকদের জানাতে কোনো ব্যবস্থাও নেয়নি সংশ্লিষ্ট এসব ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। ফলে, অনেক গ্রাহকই না জেনে দুপুর পরে লেনদেন করতে এসে ভোগান্তিতে পরেন।
লেনদেন করতে আসা একাধিক গ্রাহক ব্যাংকের এমন সিদ্ধান্তে বিস্ময় প্রকাশ করে জানান, ব্যাংক বন্ধ থাকার ব্যাপারে কর্তৃপক্ষের আগেই জানানো উচিত। কালকে নির্বাচন ও পরদিন সরকারি ছুটির কারণে দুইদিন ব্যাংক বন্ধ থাকবে। আজকেও লেনদেন না করতে পারায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন ব্যাংকে আগত এসব গ্রাহক।

সোনালী ব্যাংক দয়ারামপুর শাখায় টাকা উত্তোলন করতে আসা গ্রাহক ইসমাইল হোসেন জানান, ‘দুপুর ৩ টায় ব্যাংকে কিছু টাকা তুলতে গিয়ে দেখি ব্যাংকের গেট বন্ধ। ভেতরে থাকা আনসার সদস্যের সাথে কথা বললে জানায় আজকে আর লেনদেন হবে না। পরে, এক কর্মকর্তার সাথে কথা বললে তিনি বলেন সব অফিসার উপজেলায় গেছে, ২ টার পর থেকেই লেনদেন বন্ধ।’

অগ্রাণী ব্যাংক কাদিরাবাদ ক্যান্টনমেন্ট শাখার ব্যবস্থাপক নুসরাত জাহান জানান, ব্যাংকের অধিকাংশ কর্মকর্তার নির্বাচনের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। তারা উপজেলায় যাওয়ায় লেনদেন ব্যহত হচ্ছে। তবে, অন্যান্য সেবা অব্যাহত থাকার কথা জানান তিনি।
দুপুর পর্যন্ত লেনদেন চালু রাখার ব্যাপারে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কোনো নির্দেশনা আছে কিনা এমন প্রশ্নে তিনি জানান, ভোটের দিন ছুটির ব্যাপারে বাংলাদেশ ব্যাংকের একটি নির্দেশনা রয়েছে। ভোটের আগের ব্যাপারে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কোনো নির্দেশনা নেই। তবে, জোনাল অফিসের মৌখিক অনুমতি রয়েছে বলে জানান এই কর্মকর্তা।
রিটানিং অফিসার ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ মাছুদুর রহমান জানান, অফিসার কম থাকায় ব্যাংক কর্মকর্তাদের নির্বাচনে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। নির্বাচনের দিন ব্যাংক বন্ধের ব্যাপারে সরকারি নির্দেশনা রয়েছে। তবে, আগেরদিনের ব্যাপারে কোনো ঘোষনা না থাকলেও ঘোষনা বা নির্দেশনা দেওয়া হলে ভালো হতো।