• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১৮ Jun ২০২৪, ০৮:৪৬ অপরাহ্ন

নওগাঁয় আড়াই হাজার কোটি টাকার আম বাণিজ্যের সম্ভাবনা


প্রকাশের সময় : মে ১৯, ২০২৪, ১০:৩৫ PM / ৫১
নওগাঁয় আড়াই হাজার কোটি টাকার আম বাণিজ্যের সম্ভাবনা

ইখতিয়ার উদ্দীন আজাদ, পত্নীতলা (নওগাঁ) : নওগাঁয় চলতি মৌসুমে প্রশাসন ও কৃষি বিভাগের বেঁধে দেওয়া ২২ মে থেকে আম সংগ্রহ শুরু হবে। ওইদিন থেকে গুটি জাতের আম সংগ্রহ করা যাবে। জেলায় এবার আড়াই হাজার কোটি টাকার আম বাণিজ্যের সম্ভাবনা করছে কৃষি বিভাগ।

চলতি বছর নওগাঁয় ৩৩ হাজার ৩০০ হেক্টর জমিতে আমের চাষ হয়েছে, যা থেকে ৪ লাখ ৩১ হাজার ৫০০ টন আম উৎপাদনের আশা করা হচ্ছে। আম্রপালি, ব্যানানা ম্যাংগো, মিয়াজাকি, কাটিমন, গৌড়মতি, বারিসহ দেশি-বিদেশি মিলে প্রায় ১৬ জাতের আম চাষ হয়েছে।

প্রশাসনের বেঁধে দেওয়া সময়সীমা অনুযায়ী, এই মৌসুমে ২২ মে গুটি জাতের আম, ৩০ মে থেকে গোপালভোগ, ২ জুন ক্ষীরসাপাত/হিমসাগর, ৫ জুন নাকফজলি, ১০ জুন ল্যাংড়া ও হাঁড়িভাঙা, ২০ জুন আম্রপালি, ২৫ জুন ফজলি এবং ১০ জুলাই থেকে আশ্বিনা, বারি-৪, গৌড়মতি ও কাটিমন আম সংগ্রহ করা যাবে।

জেলার সাপাহার উপজেলাতে অবস্থিত বরেন্দ্র এগ্রো পার্কের স্বত্বাধিকারী সোহেল রানা জানান, তার প্রায় ৭৫ বিঘা জমিতে বিভিন্ন জাতের আম বাগান রয়েছে। কৃষিচর্চা অনুসরণ করে বাগান করা হয়েছে।

জেলার পত্নীতলা উপজেলার শাশইল গ্রামের আমচাষি মানিক হোসেন বলেন, আমচাষ লাভজনক হওয়ায় প্রতি বছরই বাড়ছে বাগানের পরিমাণ। আমের মুকুল থেকে শুরু করে বাজারজাত করা পর্যন্ত বিঘাতে প্রায় ৩০-৩৫ হাজার টাকা খরচ পড়ে। তবে এ বছর খরায় আরও ৪-৫ হাজার টাকা বেশি খরচ হয়েছে। অপেক্ষার প্রহর শেষ, কিছুদিনের মধ্যে আম বাজারজাত করা হবে। গাছে আমের পরিমাণ কম হলেও দাম ভালো পেলে পুষিয়ে নেওয়া সম্ভব হবে।